বিশ্বকাপের আগে কী অধিনায়কত্ব হারাবেন কোহলি!

বিরাট কোহলির অধিনায়কত্ব নিয়ে আরো একবার প্রশ্ন উঠল। আরো একবার জোর দাবি উঠল, অধিনায়ক পদ থেকে কোহলিকে সরিয়ে দেওয়ার। বিশেষ করে তিন ফরম্যাটের ক্রিকেটে অধিনায়ক হিসেবে কোহলি যুতসই কি না সেই প্রশ্নই উঠছে ঘুরেফিরে।

বিশ্বকাপের আগে কী কোহলিকে সরানো হবে? আপাতত এ আলোচনাতেই উত্তপ্ত ভারতীয় ক্রিকেটাঙ্গন। সাবেক ক্রিকেটার দ্বীপ দাসগুপ্তা জানালেন, বিশ্বকাপের আগে কোহলিকে সরিয়ে দেওয়া মোটেও ঠিক হবে না।

সম্প্রতি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনাল হেরেছে ভারত। বড় মঞ্চে কঠিন পরিস্থিতিতে কোহলির অধিনায়কত্ব সামর্থ্য নিয়ে বারবার প্রশ্ন উঠছে। ২০০৭ সালের পর ভারত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জেতেনি। এবার টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আয়োজক ভারত। যদিও বিশ্বকাপ হবে সংযুক্ত আরব আমিরাতে। নিজের আয়োজিত এ বিশ্বকাপ জিততে মুখিয়ে তারা। কোহলির নেতৃত্বে ভারত বিশ্বকাপ জিততে পারবে?

এর আগে কোহলির অধীনে ভারত ২০১৯ ওয়ানডে বিশ্বকাপের সেমিফাইনাল এবং ২০১৭ চ্যাম্পিয়নস ট্রফির ফাইনাল খেলেছিল। দাসগুপ্তার বিশ্বাস, বৈশ্বিক মঞ্চে এবারও ভারত ভালো খেলবে। সেটাও কোহলির হাত ধরে।

নিজের ইউটিউব চ্যানেলে এক প্রশ্নের জবাবে দাসগুপ্তা বলেন, ‘আমি বলবো না কোহলিকে সরিয়ে দেওয়ার এটাই উপযুক্ত সময়। রোহিত শর্মা অবশ্যই আলোচনায় থাকবে। কিন্তু টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে কোহলিকে সরিয়ে দেওয়া ঠিক হবে না। মাত্র ৩-৪ মাস সময় আছে। অধিনায়কত্ব নিয়ে নতুন করে ভাবতে সময়ের প্রয়োজন। নতুন অধিনায়কের অধীনে মানিয়ে নেওয়া আরও কঠিন হবে।’

রোহিতের ওপর আস্থা রেখে দাসগুপ্তা যোগ করেন, ‘রোহিত এর আগে দলের অধিনায়ক ছিল। তবে পূর্ণ অধিনায়ক এবং ভারপ্রাপ্ত অধিনায়কের মধ্যে পার্থক্য রয়েছে। আপনি ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক থাকাকালিন খুব বেশি পরিবর্তনের সুযোগ পাবেন না। তবে পূর্ণ অধিনায়ক থাকাকালিন আপনার পরিবর্তনের সুযোগ রয়েছে। নিজের সিদ্ধান্ত জানানোর সুযোগ থাকে।’

Show More
Back to top button